Karkuma Organic Immune Plus (রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধিতে ও লিভারের কর্মক্ষমতা স্বাভাবিক রাখতে সহায়তা করে)

কারকুমা অর্গানিক ইমিউন প্লাস একটি ফাংশনাল ফুড প্রোডাক্ট, যা ইমিউন সিস্টেম এবং লিভারের কার্যকারিতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে বিশেষভাবে তৈরি করা হয়েছে। এর সকল উপাদান সমূহ ইউনাইটেড স্টেট ডিপার্টমেন্ট অব এগ্রিকালচার (USDA)  জাপান এগ্রিকালচার স্ট্যান্ডার্ড (JAS)   এবং ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন স্ট্যান্ডার্ড (EU)   অর্গানিক সার্টিফাইড। এছাড়াও  পৃথিবীর বিভিন্ন নির্ভরযোগ্য উৎস হতে সংগৃহীত।

 

মূল উপকারিতাঃ

  • ইমিউনিটি/রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে কার্যকরী সহায়ক ভূমিকা রাখে।
  • লিভারের কোষের অক্সিডেটিভ স্ট্রেস কমিয়ে লিভার কে সুস্থ রাখতে সহায়তা করে
  • এটি একটি শক্তিশালী এন্টি অক্সিডেন্ট

 

কেন ও কিভাবে শরীরের ইমিউনিটি/ রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যায় ?

এলকোহল, ড্রাগ, ভাইরাল ইনফেকশন, পরিবেশ দূষণ আর খাদ্যে ভেজালের বিরূপ প্রভাব পড়ছে আমাদের প্রাত্যহিক জীবনে। কমছে আমাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা, বাড়ছে আমাদের স্বাস্থ্য ঝুঁকি। সেই সাথে আমরা আক্রান্ত হচ্ছি নানা রোগ ব্যাধিতে।

একজন পূর্ণ বয়স্ক ব্যক্তির  শরীরে কমবেশী ৩৭.২ ট্রিলিয়ন কোষ ( Cell ) দিয়ে গঠিত। প্রতি সেকেন্ডে প্রতি কোষে প্রায় ১ বিলিয়ন রাসায়নিক বিক্রিয়া (Chemical Reaction) সম্পন্ন হয়ে থাকে। আরও গুরুত্বপূর্ণ  বিষয় হল শরীরে প্রতি সেকেন্ডে আনুমানিক ১ মিলিয়ন কোষের মৃত্যু এবং জন্ম হয়ে থাকে। ঘাবড়ানোর কিছু নেই । কোষের এই জন্ম মৃত্যুর সাইকেল এটাই স্বাভাবিক এবং এটাই জীবন প্রবাহের পূর্বশর্ত।

কোষের রাসায়নিক বিক্রিয়া সংঘটনের সময় প্রতি নিয়তই কোষে ফ্রি রেডিক্যাল উৎপন্ন হয়। এছাড়াও এ্যালকোহল, ড্রাগস, ভাইরাল ইনফেকশন, পরিবেশ দূষণ ইত্যাদি কারণে কোষে ফ্রি রেডিক্যাল তৈরি হয়ে থাকে। দেহের সঠিক ফিজিওলজিক্যাল ফাংশনের ( Physiological Functions) জন্য ফ্রি রেডিক্যাল এবং এন্টিঅক্সিডেন্ট (Antioxidant) এর ভারসাম্য অতীব জরুরী। কোষে এই দুইয়ের ভারসাম্যহীনতাকেই অক্সিডেটিভ স্ট্রেস (Oxidative Stress) হিসেবে গন্য হয়। অক্সিডেটিভ স্ট্রেসের কারণে দেহ কোষে অবস্থিত DNA, Proteins, Carbohydrates এবং Lipids ক্ষতিগ্রস্থ হতে থাকে এবং শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা ভেঙ্গে পড়ে। এর চূড়ান্ত পরিণতি হিসেবে ডায়াবেটিস (Diabetes), ক্যান্সার (Cancer), কার্ডিওভাসকুলার ডিজিস (Cardiovascular Disease), ওবেসিটি (Obesity), নিউরোলজিক্যাল ডিজেস যেমন আলঝেইমার (Alzheimer), পারকিনসন্স (perkinsons), ডিপ্রেসন (Depression) ইত্যাদি স্বাস্থ্য সমস্যা দেখা দেয়।

প্রাকৃতিকভাবে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা / ইমিউনিটি বাড়ানোর কোন উপায় আছে?

প্রকৃতির সাথে যুদ্ধ করতে হবে প্রাকৃতিক ভাবেই। প্রকৃতির মাঝেই আছে এর সমাধান। প্রাকৃতিক ভাবে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে অর্গানিক নিউট্রিশন লিমিটেড নিয়ে এলো ফাংশনাল ফুড  কারকুমা অর্গানিক ইমিউন প্লাস । এটি আমাদের ইমিউন সিষ্টেমকে শক্তিশালী করে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে, লিভারের কোষের অক্সিডেটিভ স্ট্রেস কমিয়ে লিভার ফাংশনকে সুস্থ ও স্বাভাবিক রাখতে সহায়তা করে। “কারকুমা অর্গানিক  ইমিউন প্লাস” মানব দেহে শক্তিশালী এন্টি অক্সিডেন্ট হিসাবে কাজ করে। এটি কোষীয় এবং আণবিক পর্যায়ে কাজ করে দেহের ভেতর থেকে করে তুলবে সুস্থ্য ও সবল।

কারকুমা অর্গানিক ইমিউন প্লাস কিভাবে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা/ ইমিউনিটি বাড়াতে সাহায্য করে ?

কারকুমা অর্গানিক ইমিউন প্লাস এ বিদ্যমান কারকিউমিন একটি শক্তিশালী এন্টি অক্সিডেন্ট। গবেষনায় দেখা গেছে যে, কারকিউমিন কার্যকরী ভাবে ফ্রী রেডিক্যাল দূরীভূত করতে এবং নিজে যথাযথ স্থানে থেকে কোষ প্রাচীরকে অক্সিডেটিভজনিত ক্ষতি থেকে রক্ষা করতে সক্ষম। ইউগনল ক্লোভ অয়েলের একটি বায়ো- এ্যাকটিভ উপাদান, যা প্রদাহ নিরোধক হিসেবে কাজ করে এবং অক্সিডেটিভ স্ট্রেসের কারণে যে ক্ষতির সৃষ্টি হয় তা প্রতিহত করতে সহায়তা করে।

বিভিন্ন ইমিউন মডুলেটরস যেমন কোষীয় উপাদান Dendritic cells, Macrophages, B& T lymphocytes এবং আনবিক উপাদান যেমন Cytokines এবং বিভিন্ন Transcription Factors এর সাথে মিথস্ক্রিয়ার মাধ্যমে কারকিউমিন রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। এছাড়াও জিঞ্জার অয়েল Cell mediated immune response এবং T lymphocyte এর অনিয়ন্ত্রিত প্রসারন কে প্রভাবিত করে। সেই সাথে বিভিন্ন ক্লিনিক্যাল কন্ডিশন যেমন ক্রনিক প্রদাহ এবং অটোইমিউন ডিসিজ এর ক্ষেত্রে উপকারী ভূমিকা পালন করে। Cinnamomum Zeylanicumএর প্রধান উপাদান সিনামিক  এ্যাল্ডিহাইড আমাদের দেহকে ফ্রি রেডিক্যাল হতে সুরক্ষা প্রদানে সহায়তা করে।

এলকোহল, ড্রাগ, ভাইরাল ইনফেকশন, পরিবেশ দূষণ আর খাদ্য উপাদান ইত্যাদির কারনে সৃষ্ট অক্সিডেটিভ স্ট্রেসকে লিভার ড্যামেজের অন্যতম কারন হিসেবে গন্য করা হয়। লিভার এর কার্যকরী সুরক্ষায় দেশজ উপাদান হিসেবে কারকিউমিন বহুলত ব্যবহৃত। বিভিন্ন বৈজ্ঞানিক গবেষনায় দেখা গেছে যে, কারকিউমিন বিভিন্ন কোষীয় এবং আণবিক পর্যায়ে কাজ করে অক্সিডেটিভ সম্পর্কিত লিভারের রোগ থেকে লিভারকে সুরক্ষা প্রদান করে।

 

উপকরণঃNon-GMO এবং সার্টিফাইড অর্গানিক ভার্জিন কারকিউমিন ও এসেনসিয়াল অয়েল সমৃদ্ধ টারমারিক, অর্গানিক জিঞ্জার অয়েল, অর্গানিক ক্লোভ অয়েল, অর্গানিক সিনামন অয়েল এবং অর্গানিক ব্ল্যাক পেপার নির্যাস।

সেবনবিধিঃ ১-২টি ক্যাপসুল দৈনিক ২ বার সেবনযোগ্য। তবে ব্যক্তি স্বতন্ত্রতা এবং শরীরে কারকুমা অর্গানিক ইমিউন প্লাসের প্রভাবের উপর ভিত্তি করে সংশ্লিষ্ট চিকিৎসক/ নিউট্রিশনিষ্ট এর পরামর্শে (০১৭৫৫৬৬০৬১১) কারকুমা অর্গানিক ইমিউন প্লাস এর মাত্রা নির্ধারণ/ সমন্বয় করা যেতে পারে।

পণ্যের বায়ো এ্যাক্টিভ উপাদানের গুনাগুন মানঃ
পণ্যের বায়ো এ্যাক্টিভ উপাদানগুলো গুনে ও পরিমানে যথাযথ ব্যবহৃত হওয়ার ফলে পণ্যটি হয়ে উঠেছে উচ্চ গুণসম্পন্ন ও অধিক কার্যকর।  

পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া মুক্তঃ
সার্টিফাইড অর্গানিক উপকরণে তৈরী পণ্যটি সম্পূর্ণ নিরাপদ ও পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া মুক্ত। 

পণ্যের সুরক্ষাঃ

  • কাঁচামালঃ পণ্যের প্রধান উপাদানসমূহ পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের নির্ভরযোগ্য উৎস হতে আমদানিকৃত এবং USDA অর্গানিক সার্টিফাইড।
  • উৎপাদন ব্যবস্থাঃ আমাদের উৎপাদন কারখানা Food Safety Management System ISO 2000 : 2018 সার্টিফাইড, Codex (FAO/WHO)GMP সার্টিফাইড এবং US-FDA রেজিস্টার্ড।

সতর্কতাঃ

  • গর্ভবতী / স্তন্যদানকারী মা, পাথজনিত সমস্যা অথবা মুমূর্ষ রোগীদের জন্য প্রযোজ্য নয়।
  • যদি আপনার নিম্ন রক্তচাপ/সাধারণ রক্তক্ষরণজনিত সমস্যা/ টারমারিকে এলার্জি থাকে এবং আপনি যদি রক্ত তরলীকরন ঔষধ গ্রহণ করে থাকেন সেক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট চিকিৎসক এর পরামর্শমত কারকুমা অর্গানিক ইমিউন প্লাস সেবন করুন।

প্যাকেজ সাইজঃ ১২০ পিস ক্যাপসুল ( এক মাসের জন্য )
প্যাকেজিংঃ পেপার বক্স সহ কাঁচের বোতল।
ডেলিভারি চার্জঃ বাংলাদেশের যে কোন জায়গায় ফ্রি হোম ডেলিভারি করা হয়।
ক্যাশ অন ডেলিভারি।

সংরক্ষণ পদ্ধতিঃ আলো থেকে দূরে , শুষ্ক ও ঠান্ডা স্থানে সংরক্ষণ করুন।

কারকুমা অর্গানিক ইমিউন প্লাস একটি ফাংশনাল ফুড প্রোডাক্ট কোনো ঔষধ নয়।

Subscribe